এইমাত্র পাওয়া ! বিএনপি নেতা শাহাদাতকে যে মামলায় গ্রেফতার – জেনে নিন


জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগের দিন ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার চট্টগ্রামের বিএনপি নেতা ডা. শাহাদাত হোসেনকে আরও তিন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পুলিশের আবেদনে সাড়া দিয়ে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মহিউদ্দিন মুরাদ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী সাহাবুদ্দিন আহমেদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বিভিন্ন সময় সংঘটিত বাকলিয়া থানার নাশকতা, বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনের তিনটি মামলায় শাহাদাত হোসেনকে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন করা হয়।

“আজ আদালত শুনানি শেষে তিন মামলায়ই তাকে গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ দিয়েছেন।” চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সভাপতি শাহাদাত হোসেন চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি-বাকলিয়া) আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী। রোববার বাছাইয়ে তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়েছে।

নাশকতা, বিস্ফোরক এবং ‍পুলিশের ওপর হামলাসহ মোট ৪৫টি মামলা আছে পেশায় চিকিৎসক শাহাদাতের বিরুদ্ধে। গত ৭ নভেম্বর ঢাকার সিএমএম আদালত এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী অক্টোবরের শেষ দিকে একটি মামলায় চট্টগ্রামের আদালতে হাজির হলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর বিএনপি কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায়ই শাহাদাতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

এরপর গত ২ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে এলে জেলখানায় থাকা অবস্থায় লেখা একটি চিঠি তিনি বিএনপি নেতাদের দেন। পরে সেই চিঠি গণমাধ্যম কর্মীদের দেওয়া হয়।

ওই চিঠিতে নিজের আসনের ভোটারদের কাছে তিনি ধানের শীষে ভোট প্রার্থনা করেন। শাহাদাত ছাড়াও কারাগারে থাকা বিএনপি নেতা গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীকে সম্প্রতি ফটিকছড়ি থানার একটি নাশকতার

মামলায় এবং আরেক কারাবন্দি নেতা আসলাম চৌধুরীকে হাটহাজারী থানা এলাকায় হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আদেশ দিয়েছে আদালত। সূত্র – বিডিনিউজ২৪

গত ২ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে এলে জেলখানায় থাকা অবস্থায় লেখা একটি চিঠি তিনি বিএনপি নেতাদের দেন। পরে সেই চিঠি গণমাধ্যম কর্মীদের দেওয়া হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*