এইমাত্র আওয়ামী নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সম্ভাব্য প্রার্থীর নামে যে অভিযোগ করলো বিএনপি !


সিলেট-১ আসনের আওয়ামী নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সম্ভাব্য প্রার্থী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছে সিলেট মহানগর বিএনপি।

এ বিষয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসকের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন মহানগর বিএনপির নেতারা।

শনিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে নগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেকের নেতৃত্বে

নেতাদের দেওয়া অভিযোগটি গ্রহণ করেন সিলেটের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল্লাহ।

অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, সিলেট-১ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনিত সম্ভাব্য সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন শুক্রবার (২৩ নভেম্বর) বিকেল ৪টায় সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের কালারুকা বাজারে শীতবস্ত্র ও ঢেউটিন বিতরণ করেছেন।

এছাড়াও ব্যান্ড পার্টি বাজিয়ে তিনি ওই স্থানে মিছিল সহকারে যান এবং আগে থেকে বেআইনিভাবে এই ঢেউটিন বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পর্কে প্রচারণা চালানো হয়।

এসব কার্যক্রম সিলেট-১ আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ও উপস্থিতিতে সংগঠিত হয়েছে। যা নির্বাচন আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের (ইসি) প্রতি আহ্বান জানান তারা।

অভিযোগ দেওয়ার সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- নগর বিএনপির সহ-সভাপতি মুফতি বদরুন নুর সায়েক, বাবু নিহার রঞ্জন দে, সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুল আহমদ মোর্শেদ, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুমিনুল ইসলাম মুমিন, সাবেক ছাত্রনেতা কয়েস আহমদ ও রাজন আচার্য্য প্রমুখ।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, নির্বাচন হবে কি-না এ নিয়ে আশঙ্কার কথা বলছেন ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেন। একইভাবে রাজনীতিবিদ কর্নেল (অব.) অলি আহমেদও আশঙ্কা করছেন এই নির্বাচন হবে কি-না। আমরা জানি না এই নির্বাচন নিয়ে কি হচ্ছে। তবে আমরা নির্বাচনটি নিয়ে কোনো খেলা দেখতে চাই না।

শনিবার (২৪ নভেম্বর) রাজধানীর ইস্কাটনে বিস মিলনায়তনে আয়োজিত এক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।

‘ভোটের রাজনীতি ও জনগণের ভোটের অধিকার’- শীর্ষক এই সেমিনারের আয়োজন করে সেন্টার ফর গভর্নেন্স স্টাডিজ। এতে হানিফ বলেন, ড. কামাল হোসেনের মতো দায়িত্বশীল ও বিচক্ষণ নেতা যখন নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন। যখন কর্নেল (অব.) অলি আহমেদের মতো নেতাও শঙ্কা প্রকাশ করেন। তখন তাদের কথা উড়িয়ে দিতে পারি না। আমরা জানি না আদৌ এই নির্বাচন নিয়ে কোনো খেলা হচ্ছে কি-না। তবে আমরা এই নির্বাচন নিয়ে কোনো খেলা দেখতে চাই না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*